মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

এক নজরে গোহালবাড়ী ইউনিয়ন

গ্রাম বাংলার পল্লী সমাজে গড়ে  উঠা ভোলাহাট উপজেলার একটি ঐতিহ্যবাহী অঞ্চল হলো গোহালবাড়ী ইউনিয়ন অবস্থিত। কাল পরিক্রমায় আজ গোহালবাড়ী ইউনিয়ন শিক্ষা, সংস্কৃতি, ধর্মীয় অনুষ্ঠান, খেলাধুলা সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে তার নিজস্ব স্বকীয়তা আজও সমুজ্জ্বল।

ইউনিয়ন পরিচিতি: চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার ভোলাহাট উপজেলা হতে ১ কিঃ মিঃ দূরে অবস্থিত। ইউনিয়ন পরিষদটি ১৯৬২-৬৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। ইউনিয়নটির পূর্বে ৩নং দলদলী ইউনিয়ন, পশ্চিমে ১নং ভোলাহাট ইউনিয়ন, উত্তরে মহানন্দা নদী এবং দক্ষিণে ৪নং জামবাড়িয়া ইউনিয়ন অবস্থিত।

 

ইউনিয়ন পরিষেদের সম্পত্তির বিবরণী: মৌজা: জয়গোবিন্দ, আরএস খতিয়ান নং ২/১, দাগ নং ১৫৭১, জমির পরিমাণ ২২ শতক। সম্পত্তিটি রহিমের নিকট হতে ইউনিয়ন পরিষদ ১৯৮০ সালে ক্রয় করেছে। এছাড়া অন্য কোন স্থানের জমি নেই।

 

ইউনিয়নের বেসিক তথ্য

ক্র: নং

তথ্যের ধরণ

বিস্তারিত তথ্য

০১

ইউনিয়নের আয়তন

২০ বর্গ কিলোমিটার

০২

জমির পরিমাণ

কৃষি জমির পরিমাণ, পতিত, ইত্যাদি

(জমির শ্রেণী বিন্যাস উল্লেখ করতে হবে।

০৩

জনসংখ্যা

মোট জনসংখ্যার পরিমান ২০১১ সালের আদমশুমারী অনুযায়ী ২৭৬৩২ জন; যার মধ্যে পুরুষ- ১৪৩১৬ জন এবং মহিলা- ১৩৩১৬ জন।

০৪

স্বাক্ষরতার হার %

৬৫%

০৫

মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা

মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা-৮৮ জন, ভাতাভোগী-৮০ জন

০৬

বিভিন্ন ভাতা ভোগীর নাম

বয়স্ক ভাতা-৯৫০ জন, বিধবা ও স্বামীপরিত্যক্তা ভাতা-৪০৮ জন, প্রতিবন্ধী ভাতা- ৩২৯ জন, ভিজিডি উপকারভোগী- ৪৮০ জন, মাতৃত্বকালীন ভাতা- ১৬৬ জন।

০৭

ইউনিয়ন কিসের জন্য বিখ্যাত (যদি থাকে)

 

রেশম ও আম এর জন্য

 

০৮

 

 

০৯

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

কলেজ ১টি কারিগরি কলেজ ১টি, মাদ্রাসা দাখিল ৩টি, আলিম ২টি, ফজিল ২টি, উচ্চ বিদ্যালয় (বালক)-৩ টি, উচ্চ বিদ্যালয় (বালিকা)-১টি,  প্রাথমিক বিদ্যালয় ০৯টি, নূরানী মাদ্যাসা ২টি, হাফেজ খানা ১টি, প্রতিবন্ধী স্কুল- ১টি ও এবতেদায়ী মাদ্রাসা ১ টি।

১০

খেলার মাঠ

এ ইউনিয়নে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সংলগ্ন খেলা মাঠ রয়েছে

১১

গুরুত্বপূর্ণ পদে অধিষ্ঠিত অন্যান্য অফিসার (যদি থাকে)

এ ইউনিয়নে ২ নং ওয়ার্ডের কুমিরজান গ্রামের মোহাঃ জালাল উদ্দিন, যুগ্ন জেলা ও দায়রা জর্জ

১২

নদ-নদীর তথ্য

এই ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের পাশ দিয়ে বয়ে গেছে ঐতিহ্যবাহী  মহানন্দা নদী। এই স্থানটি ২ নং গোহালবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের নিকট বর্তী মনোরম ও দর্শণীয় স্থান। এখানে বিভিন্ন উৎসবে প্রচুর লোকের ভিড় হয়। এই স্থানটি মহানন্দা নদীর তীরে অবস্থিত। এখানকার মুক্ত আবহাওয়ায় গ্রাম বাংলার মানুষের মন ও প্রাণ জুড়িয়ে দেয় বলে বিকাল বেলা এখানে অনেক লোকের ভিড় জমে। এই স্থানটি ভোলাহাটের অত্যান্ত সুপরিচিত স্থান।

 

 

১৩

পুকুর,বিল, দাঁড়া (সরকারি/ব্যক্তিমালিকানাধীন)

বিল ভাতিয়া, আনুমানিক ৩০০ একর

কৃষি জমির পরিমাণ- ৬১৮৮.০০ একর

অকৃষি জমির পরিমাণ- ১৯৩৩.৯৯ একর

খাস জমির পরিমাণ- ৪৪৬৬.৬৪ একর

অর্পিত সম্পত্তির পরিমাণ

ক) তফশীলভূক্ত : ১২.৮২ একর,খ) তফশীল বর্হিভূত : ৪১.৩৩ একর

 

১৪

ঐতিহাসিক স্থান

মহানন্দা নদীর তীর, বরখা পীরের মাজার

১৫

বিনোদন কেন্দ্র/দর্শনীয় স্থান

মহানন্দা নদীর তীর (বজরাটেক মুন্সিগঞ্জ হাটের নিচে)

১৬

ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান

মসজিদ ২৭ টি

১৭

সাংস্কৃতিক গোষ্ঠী

গম্ভীরা গোষ্ঠী, লাঠি খেলা, কাবাড়ি খেলা, ফুটবল খেলা ইত্যাদি

১৮

হাট বাজারের তথ্য

গোহালবাড়ী হাট, মুন্সিগঞ্জ হাট, কালিতলা বাজার, সুরানপুর  বাজার

১৯

ইউনিয়ন পরিষদের রাজস্ব আয়ের গুরুত্বপূর্ণ উৎসের নাম

হোল্ডিং ট্যাক্স, সায়রাত মহল, বিশুদ্ধু খাবার পানি সরবরাহ ইত্যাদি

                                                                                                                                                                       

২0. শিক্ষা প্রতিষ্ঠানঃ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়- ০৯ টি যথা: তিলোকী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, সুরানপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কুমিরজান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বীরেশ্বরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, গোহালবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, খালিমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কানারহাট মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বজরাটেক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মুন্সিগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

 

২1. কলেজের বিবরণ: অত্র প্রতিষ্ঠানটি ভোলাহাটের ঐতিহ্যবাহী প্রতিষ্ঠান। এই প্রতিষ্ঠানটি ১৯৮৬ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। এই প্রতিষ্ঠান থেকে বিজ্ঞান, মানবিক এবং বানিজ্য বিভাগের সকল ছাত্র ছাত্রী সফলতার সহিত পাশ করে দেশের সেবায় অংশগ্রহণ করছে। তাছাড়া প্রতিষ্ঠানটিতে পাঠদান পদ্ধতি সহজবোধ্য করে তোলা হয় বলে এখানে অনেক ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি হয়।

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter